কবীরা গোনাহ কী? এবং কবীরা গোনাহের তালিকা!

কবীরা গোনাহ কী

আজ আমরা শিখবো কবীরা গোনাহ সম্পর্কে। প্রথমেই জনে নেই কবীরা শব্দের অর্থ কী?
কবীরাহ শব্দটি মূলতঃ "কাবিরাহ" যা আরবী শব্দ! কাবীরাহ অর্থ বড়,বৃহৎ ইত্যাদি। আর গোনাহ মানে তো সকলেই জানি অর্থাৎ পাপ, আল্লাহর অবাধ্য হওয়া,নাফরমানী করা ইত্যাদি।এবার আসি মূল আলোচনায়ঃ




بِسْــــــــــــــــــمِ-اﷲِالرَّحْمَنِ-اارَّحِيم‎
আসসালামু আলাইকুম ওরাহমাতুল্লাহ!
আশা করি সকলে ভালো আছেন। সর্বাবস্থায় মহান প্রভুর শুকরিয়া "আলহামদুলিল্লাহ "

কবীরা গোনাহ কী

আজ আমরা শিখবো কবীরা গোনাহ সম্পর্কে। প্রথমেই জনে নেই কবীরা শব্দের অর্থ কী?
কবীরাহ শব্দটি মূলতঃ "কাবিরাহ" যা আরবী শব্দ! কাবীরাহ অর্থ বড়,বৃহৎ ইত্যাদি। আর গোনাহ মানে তো সকলেই জানি অর্থাৎ পাপ, আল্লাহর অবাধ্য হওয়া,নাফরমানী করা ইত্যাদি।

এবার আসি মূল আলোচনায়ঃ

কবীরা গোনাহ বা বড় গোনাহের তালিকাঃ

১/ শিরক করা কবীরা গোনাহ।
শিরক অতন্ত্যই মারাত্মক বড় গোনাহ। কারণ আল্লাহ সব গোনাহ হ্মমা করেন (উপযুক্ত তওবার দরুন) কিন্তু শিরিক হ্মমা করেন না।
দলীলঃ
কোরআন শরীফে বলা হয়েছে:
আল্লাহ তায়ালা শিরক করাকে হ্মমা করেন না। এছাড়া অন্যান্য গোনাহ যার জন্য ইচ্ছা হ্মমা করেন। [সূরা নিসাঃ ১১৬]

২/ মা-বাপের নাফরমানী করা।
অর্থাৎ, তাদের হক আদায় না করা কবীরা গোনাহ।
 (এই সম্পর্ক বিস্তারিত আলোচনা সামনে আসবে ইনশাআল্লাহ)

৩/ "কাত্য়ে রেহমী" করা।
অর্থাৎ, যে সব আত্মীয়দের সাথে রক্তের সম্পর্ক রয়েছে তাদের সাথে অসদ্ব্যবহার করা এবং তাদের হক নষ্ট করাও কবীরা গোনাহ।
 (এই সম্পর্ক বিস্তারিত আলোচনা সামনে আসবে ইনশাআল্লাহ)

৪/ যিনা করা।
অর্থাৎ, নারীর জন্য সতীত্ব নষ্ট করা এবং পুরুষের জন্য চরিত্র নষ্ট করা কবীরা গোনাহ।
 (এই সম্পর্ক বিস্তারিত আলোচনা সামনে আসবে ইনশাআল্লাহ)

হে আল্লাহ!
আজ আমরা যা শিখলাম সোগুলো আমল করার তাওফিক দান করুন এবং আমাদেরকে জাহান্নামের আজাব থেকে হেফাজত করুন!

আমিন!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

1 মন্তব্য

মতামত লিখুন ! আপনার মতামত আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ।